ব্র্যান্ডিং

প্রথমদিকে পণ্যের গুণগত মানের ব্যাপারে অনেক বেশি মনোযোগ ছিল। ক্রমেই দেখা গেল শুধু মান নয় বরং তার প্রতি সম্ভাব্য ক্রেতাদের যে পারসেপশন তা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আর সে কারণেই প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের ব্র্যান্ডিংয়ের ব্যাপারে ঝাঁপিয়ে পড়ল। পরবর্তীতে প্রতিটি পণ্যের আলাদা ইমেজ সৃষ্টিতেও মনোযোগী হয়। এখন শুধু কোম্পানি বা তার পণ্য নয় বরং এখানে কর্মরতদেরও স্বতন্ত্র ব্র্যান্ড ইমেজ গড়ে তোলার জোর চেষ্টা লক্ষ করা যাচ্ছে। তাই আগামী দিনে ব্র্যান্ড ইমেজই ঠিক করেবে: কে টিকে থাকবে আর কে হারিয়ে যাবে!!!

তাহলে, বোঝা গেল ব্র্যান্ডিংয়ের গুরুত্ব?

Follow Me

error

করোনা সতর্কতায় কোন ছাড় নয়, প্লিজ