অনন্য মানুষ আপনি!

অনন্য মানুষ আপনি!

আপনি কী জানেন– অনন্য এক মানুষ আপনি? জন্মসূত্রে আপনি যেমন স্বতন্ত্র এক দেশের নাগরিক, ঠিক তেমনি মানুষ হিসাবেও ইউনিক। তারপরও আমরা অমুকের মতো হতে চাই তমুকের মতো বক্তৃতা দিতে চাই…। কেন সেটা করা জরুরি?

আসলে নানা কারণে আমরা অনেকক্ষেত্রে নিজের ওপর আস্থা হারাই। আমিও যে বিশেষ কিছু করার ক্ষমতা রাখি বা সমাজকে কিছু দেওয়ার সামর্থ্য রাখি– এই বিশ্বাসে মাঝেমধ্যে চিড় ধরে। নিজের ভাবনার ওপর বিশ্বাস উঠে যায়। আর তখনি আমরা এক্স ওয়াই জেড-এর মতো হতে চাই।

ভাবতে পারেন, জগতে সবাই কী ইউনিক হয়?

তা যদি না হয় তবে বলুন তো কার কার ঘরে ইউনিক সন্তান জন্মাবে– এমন কোনো তালিকা কোথাও দেখেছেন? মাদার তেরেসা যখন জন্মেছিলেন কিংবা নেলসন ম্যান্ডেলা…তাদের মা-বাবা কিংবা প্রতিবেশীরা তাদের শরীরে কি বিশেষ কোন চিহ্ন দেখেছিলেন? যা দিয়ে বোঝা যাবে যে, জগতে তারা স্পেশাল মানুষ হবেন?

আবার ধরুন, বারাক ওবামা। তার জন্মটা হয়তো সেই সময় তার মায়ের কাছে অনেকটা বোঝাই মনে হয়েছিল। কারণ তার বাবার সাথে তখন বেশ ঝামেলা চলছিল। নিজেকে ভিন্ন পরিবেশে মনোযোগী করার জন্য তিনি আমেরিকা ছেড়ে দ্বিতীয় স্বামীর সাথে ইন্দোনেশিয়ায় চলে গিয়েছিলেন। অথচ মাত্র দুই বছর বয়সে পিতার সান্নিধ্য হারানো (ডিভোর্সের পর তার বাবা পিতৃভূমি কেনিয়ায় ফিরে যান) সেই ছেলেটা পরবর্তীকালে দুনিয়ার সবচেয়ে প্রভাবশালী রাষ্ট্রের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তিতে পরিণত হয়েছেন। যার মতো করে বক্তৃতা দেওয়ার স্বপ্ন দেখে লাখো তরুণ!

ফলে সৃষ্টিকর্তা আপনাকে বিশেষ মানুষ হিসাবেই দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। সমাজ ও পরিবেশ সেটাতে পার্থক্য সৃষ্টি করে। অনেকসময়ই সেই বাধা অনতিক্রম্য মনে হয়। কিন্তু তারপরও যারা হাল ছাড়ে না– তাদের কথাই আমরা বইপত্রে পড়ি। শুধু ভালো পরিবারে জন্ম, বেটার জায়গায় নিয়ে গেলেও তা ধরে রাখা বা সমুন্নত করা অনেকক্ষেত্রেই সম্ভব হয় না। অভিষেক বচ্চন তার ভালো উদাহরণ। তিনি জন্মসূত্রে যে সুযোগ পেয়েছেন বলিউডের অধিকাংশ সফল অভিনেতাই সেটা পাননি। তারপরও…

আমরা কথায় কথায় যার উক্তি স্মরণ করি সেই এ পি জে আব্দুল কালামের কথাই ধরুন। তিনি যেখানে জন্মেছিলেন সেখানকার ছেলেমেয়েরা হাইস্কুলে পড়ার স্বপ্ন দেখারও সাহস করতো না। কিন্তু তিনি সেই দেশের সর্বোচ্চ পদে আসীন হয়েছেন! অন্যদিকে, নরেন্দ্রমোদীর শৈশবের গল্প অনেক ভাবেই শুনে থাকি। অথচ সেই ছেলেটি আজ দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব– কেমন করে সেটা সম্ভব?

কারণ জন্মের সময় আমরা সবাই বিপুল সম্ভাবনা নিয়ে জন্মেছি। যারা কঠোর শ্রম ও সাধনায় সেগুলো যথাযথভাবে কাজে লাগান– তারাই বিজয়ী হন। আর অন্যেরা তাদের নির্দেশ মোতাবেক কাজ করে…তাই সকল প্রতিকূলতাকে চ্যালেঞ্জ করে প্রমাণ করুন…অনন্য মানুষ আপনি!

মার্কেটিং পেশা কী আদৌ সম্মানজনক?!

Follow Me

error

করোনা সতর্কতায় কোন ছাড় নয়, প্লিজ